Menu

চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা প্রশাসনের ভিন্ন আয়োজনে পহেলা বৈশাখ উদযাপন

 

ডি.এম কপোত নবী:
আমের রাজধানী চাঁপাইনবাবগঞ্জে জেলা প্রশাসনের ব্যতিক্রম আয়োজনের মধ্য দিয়ে পহেলা বৈশাখ পালন করা হয়েছে। ধর্ম, বর্ণ নির্বিশেষে বর্ষবরণ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে স্বতঃফুর্ত অংশগ্রহণের মাধ্যমে আগামী প্রজন্মের নিকট অসাম্প্রদায়ীক বাঙালি চেতনার বিকশিত রূপ প্রস্ফুটিত করতে জেলা প্রশাসন মঙ্গল শোভাযাত্রা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, পুরস্কার বিতরণ ও বাংলার নানা রকম মুড়ি মুড়কি আর মিষ্টি বিতরণের পাশাপাশি অসহায় ও দুস্থ মানুষদের মাঝে শাড়ি লুঙ্গি বিতরণ করে। এছাড়াও প্রাকৃতিক দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্ত ২৯ টি দৃস্থ পরিবারের প্রতিটির মাঝে ২ বান্ডিল ঢেউ টিন ও নগদ ৬ হাজার টাকা আর্থিক সহায়তা প্রদান করা হয়। দুপুর ১২ টায় জেলা প্রশাসনের সম্মেলন কক্ষে জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের মাঝে বৈশাখী উপহারও প্রদান করা হয়।

বিতরণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, জেলা প্রশাসক এ জেড এম নূরুল হক, স্থানীয় সরকার উপ-পরিচালক ড. চিত্রলেখা নাজনীন, সিভিল সার্জন, ডা. সায়ফুল ফেরদৌস মো. খায়রুল আতাতুর্ক, পুলিশ সুপার টি এম মোজাহিদুল ইসলাম বিপিএম-পিপিএম, বীর মুক্তিযোদ্ধা ও জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আলহাজ্ব রুহুল আমিন, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও এরফান গ্রুপের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব এরফান আলী, সাবেক এমপি আব্দুল ওদুদ প্রমুখ। আরো উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক এ কে এম তাজকির-উজ-জামান, অতিরিক্ত ম্যাজিস্ট্রেট দেবেন্দ্র নাথ উরাঁও, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক রাজস্ব মাসরুবা ফেরদৌস প্রমুখ।

রবিবার সকালে জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সামনে বটতলা থেকে একটি বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বিভিন্ন সড়ক ঘুরে গ্রীণ ভিউ উচ্চ বিদ্যালয়ের পাশে জেলা প্রশাসনের তৈরি মঞ্চে শেষ হয়। শোভাযাত্রায় অংশগ্রহণ করে জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন, চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌরসভা, বিভিন্ন সরকারি দপ্তর, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠণ। গ্রাম বাংলার ঐতিহ্য গরুগাড়ী, হাতি, পাল্কি, গ্রামের বধূ, বর-কনে, ঢেঁকি, জাঁতা, লাঙ্গল, মই, ঘুড়িসহ রংবেরং এর ফেস্টুন শোভাযাত্রাকে আকর্ষনীয় করে তোলে। বর্ষবরণের মূল আয়োজন সংগীত, আবৃত্তি ও নৃত্য পরিবেশিত হয়। বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান বৈশাখের আল্পনা এঁকে দৃশ্যপট আরো সুন্দর করে তোলে।

বাংলাদেশ মেডিকেল এ্যাসোসিয়েশন চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা শাখা নবাবগঞ্জ ক্লাবে বর্ষবরণ পালন করে। সাধারণ পাঠাগার চত্বরে নাগরিক কমিটি, জেলা পরিষদ, এক্সিম ব্যাংক কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, প্রয়াস মানবিক উন্নয়ন সোসাইটি, শাহনেয়ামতুল্লাহ কলেজ দিনভর বর্ষবরণে বিভিন্ন অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। অন্যান্যবারের তুলনায় এবারের বৈশাখে প্রশাসনের কড়া নজরদারী ছিল চোখে পড়ার মত। মানুষের ¯্রােত সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত মিশে গিয়েছিল কোর্ট বাগান এলাকায়। সকল বয়সের মানুষের পদচারণায় মুখোরিত হয়ে উঠেছিল আ¤্র কাকনে ঘেরা কোর্ট বাগান। পুলিশ, গোয়েন্দা পুলিশ, ট্রফিক পুলিশসহ অন্যান্য বাহিনী নিরাপত্তা বিধানে যথেষ্ট চোখে পড়েছে। এছাড়াও র‌্যাব মোটরসাইকেল নিয়ে সড়ক ও অনুষ্ঠানস্থলে মুহুর্মুহ টহল দিতেও দেখা গেছে।

No comments

Leave a Reply